ঢাকা ২১ মে, ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম
বাজেট অধিবেশন শুরু ৫ জুন নিপুণের পেছনে বড় শক্তি আছে : ডিপজল ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক কলাপাড়ায় মাসব্যাপী তাঁত শিল্প মেলা শুরু নো হেলমেট নো ফুয়েল বাস্তবায়নে রংপুর জেলা পুলিশের বিশেষ উদ্যোগ ইরানে পাঁচ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা বাবুবাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু চান্দিনায় ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেলের ২ আরোহী নিহত ব্যাটারিচালিত রিকশা চালু রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর দুই ইলিশের দাম ১৪ হাজার টাকা

দেশে বিদ্যুতের দাম অন্য দেশের তুলনায় কম: তথ্যমন্ত্রী

#

নিজস্ব প্রতিবেদক

০২ মার্চ, ২০২৩,  3:26 PM

news image

রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। বিদ্যুতের মূল্যস্ফীতিও অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে অনেক কম। ভারতের তুলনায়ও দেশে বিদ্যুতের দাম অনেক কম বলেও দাবি করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) দুপুরে সচিবালয়ের নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। মূল্যস্ফীতি নিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, কোনো কোনো দেশে মূল্যস্ফীতি ২০ শতাংশ ছাড়িয়েছে। বাংলাদেশে এই মূল্যস্ফীতি মাত্র সাড়ে ৮ শতাংশ, যা উন্নত দেশের তুলনায় অনেক কম। অথচ বিএনপি নেতারা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মূল্যস্ফীতি আড়াল করে শুধু বাংলাদেশের মূল্যস্ফীতি নিয়ে সমালোচনা করছে। বিদ্যুতের মূল্যস্ফীতিও অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে অনেক কম।

ভারতের তুলনায়ও দেশে বিদ্যুতের দাম অনেক কম বলেও দাবি করেন তিনি। বিএনপির সমালোচনা করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, দুর্নীতিতে বিএনপি বারবার চ্যাম্পিয়ন হলেও, তারা সরকারের দুর্নীতি নিয়ে সমালোচনা করছে। যাদের সারা গায়ে দুর্নীতির গন্ধ, তারা যখন দুর্নীতির কথা বলে; তখন তাদের দুর্নীতির গন্ধ ছড়িয়ে যায়। বিদ্যুতের দাম বাড়লে স্বল্প আয়ের মানুষের কিছুটা কষ্ট হয় জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, পুরো বিশ্বে যেখানে সবকিছুর দাম ঊর্ধ্বমুখী সেখানেও সরকার সর্বোচ্চ ভর্তুকি দিয়ে সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যেই সবকিছুর দাম নির্ধারণ করছে। তবে স্বল্প আয়ের মানুষের কষ্ট কিছুটা বেড়েছে, তাদের আয় খুব একটা বাড়েনি। বিশ্বের অবস্থা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসলেই আবার সবকিছুর দাম কমানো হবে। আসন্ন রোজায়ও সরকার চেষ্টা করছে যাতে দ্রব্যমূল্যের দাম না বাড়ে। তাই মানুষকে আতঙ্কিত হয়ে অতিরিক্ত পণ্য না কিনতেও অনুরোধ করেন হাছান মাহমুদ। আগামী নির্বাচনে রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ বাড়বে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর পাশাপাশি সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণও বাড়বে। সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক একটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২০১৮ সালের নির্বাচনের তুলনায় আরও বেশি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে।

logo

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. নজরুল ইসলাম